June 27, 2022, 1:53 pm

গোয়ালন্দে কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ, প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ

সাংবাদিক বামঃ
  • পোস্ট হয়েছেঃ সোমবার, নভেম্বর ২২, ২০২১
  • 73 পড়া হয়েছেঃ

নিজস্ব প্রতিবেদক, গোয়ালন্দঃ রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ পৌরসভার কাউন্সিলর মো. শাহিন মোল্লার বিরুদ্ধে শারিরীক প্রতিবন্ধী ওমর আলী মল্লিকের প্রায় ১৫ শতাংশ জমি প্রতারণার মাধ্যমে দখল ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে। জমি দখলসহ অসাধু কাজে জড়িত থাকার অভিযোগে সোমবার উপজেলা পরিষদের সামনে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছে। অভিযোগ অস্বীকার করে কাউন্সিলর শাহিন মোল্লা উল্টো আয়োজকদের কয়েকজনের বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ করেন।

সোমবার বেলা ১১টায় ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের গোয়ালন্দ উপজেলা পরিষদের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়। প্রায় ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন শেষে তাঁর কুষপুত্তলিকা দাহ করা হয়। পরে বিক্ষোভ মিছিল বের করে উপজেলা পরিষদ চত্বর ঘুরে পুনরায় মহাসড়কে এসে শেষ হয়। এতে শারিরীক প্রতিবন্ধী ওমর আলী মল্লিকসহ তাঁর পরিবার, সরকার দলীয় সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মী ও এলাকার কয়েকশ তরুণ-যুবক গ্রহণ করেন।

মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন ভুক্তভোগী শারিরীক প্রতিবন্ধী ওমর আলী মল্লিক, ৩নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর শাহজাহান শেখ, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক হিরু মৃধা, উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম ইত্তেহাদ সিয়াম, পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আকাশ সাহা, মনসুর, সুরুজ প্রমূখ।

বক্তারা বলেন, পৌরসভার ৩নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর কাঠমিস্ত্রী হিসেবে কাজ করতেন। তাঁর বিরুদ্ধে প্রতারণা, জমি দখল, শিশু অপহরণ, ছিনতাই, ডাকাতি সহ নানা ধরনের মামলা রয়েছে। বাস করতেন পানি উন্নয়ন বোর্ডের জায়গায়। কাঠমিস্ত্রী থেকে তিনি এখন লাখ লাখ টাকার মালিক। নিজস্ব জমি, বাড়ির মালিক হয়ে এখন তিনি পৌরসভার কাউন্সিলর। আমরা অবিলম্বে কাউন্সিলর থেকে অপসারণ চাই। তাঁকে অনতিবিলম্বে অপসারণ করা না হলে আগামীতে ৩নম্বর ওয়ার্ডের জনগনকে সাথে নিয়ে আরো দুর্বার আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।

অভিযোগ রয়েছে পৌরসভার ৩নম্বর ওয়ার্ড কুমড়াকান্দি মল্লিক পাড়ার প্রতিবন্ধী ওমর আলী মল্লিকের ৮৭নং মৌজার প্রস্তাবিত ৮৯২/২ নং খতিয়ানের ২২৯৩নং দাগের বাড়ির ৯৩ শতাংশ জমির মধ্যে ১৫ শতাংশ জমি নিয়ে বিরোধ রয়েছে। বিরোধের কারেণ জমি বিক্রির সিদ্ধান্ত নেন ওমর আলী। এই সুযোগে কাউন্সিলর শাহিন প্রতি শতাংশ ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা দরে মোট ২২ লাখ ৫০ হাজার টাকায় বিক্রির সিদ্ধান্ত নেন। কাউন্সিলর শাহিন মোল্লা ২২ লাখ ৫০ হাজার টাকার মধ্যে ১ লাখ টাকা প্রদান করে বাকি ২১ লাখ ৫০ হাজার টাকা অন্য মালিকের কাছে বিক্রির পর দেওয়ার কথা। সেই জমি পাওয়ার অব এটর্নি বলে শাহিন মোল্লা অন্যত্র ২০ লাখ টাকায় বিক্রি করেন।

প্রতিবন্ধী ওমর আলী মল্লিক বলেন, আমার পরিবার নিয়ে এখন রাজবাড়ী থাকি। আমার বয়স হয়েছে। ঠিকমতো চলাচল করতে পারিনা। আমি এর একটি সুষ্ঠ সমাধান চাই। কাউন্সিলর শাহিন আমার সাথে প্রতারণা করেছেন। আমি তাঁর উপযুক্ত শাস্তি চাই।

অভিযোগ প্রসঙ্গে কাউন্সিলর শাহিন মোল্লা বলেন, ওমর আলী অসুস্থ্য থাকায় তার অনুরোধে পাওয়ার অব এটর্নি গ্রহণ করি। পরে তার প্রয়োজনে নগদ ১ লাখ টাকা এবং আড়াই লাখ টাকার চেক দিয়েছি। জমি বিক্রির পর বাকি টাকা তাকে পরিশোধ করে দেওয়ার কথা ছিল। এখন পর্যন্ত জমি বিক্রি করতে পারিনি। অথচ আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ আনা হচ্ছে। যারা অভিযোগ আনছে তারাই জমির মালিকের সাথে প্রতারণা করছেন। কৌশলে ওমর আলীকে ব্যবহার করে জমি দখলের পায়তারা করছেন। ইতিমধ্যে চক্রের কয়েকজন ২০লাখ টাকা জমির মূল্য নির্ধারণ করে ১০ লাখ টাকা প্রদান দেখিয়ে একটি বায়নানামা করে ওমর আলীর জমি দখলের চেষ্টা করছেন।

শেয়ার করুনঃ

এই জাতীয় আরোও সংবাদ...
Copyright 2022 | Mys-tv.com
Ghorbaree Wala - ghorbareewala. Ghorbaree Wala
themesba-lates1749691102